,

শিরোনাম :
«» গার্মেন্টস শ্রমিকের বোনাস ৩০ মে এবং বেতন ২ জুনের আগেই প্রদানের আহবান শ্রম প্রতিমন্ত্রীর «» জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে গৃহীত কর্মসূচি «» চীনা বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান মোমেনের «» কৃষকদের ধান কাটতে সহযোগিতা করছে ছাত্রলীগ «» দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে সকলের দোয়া চাইলেন প্রধানমন্ত্রী «» বিশ্বে সাম্য প্রতিষ্ঠায় বঙ্গবন্ধু থেকে শিক্ষা গ্রহণের অনেক কিছু আছে : তথ্যমন্ত্রী «» মোদিকে প্রধানমন্ত্রীর ফোন, নির্বাচনে বিপুল বিজয়ে আন্তরিক অভিনন্দন «» চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের মধ্যে রেল সংযোগ নির্মাণে এডিবি সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর «» আসন্ন ঈদ-উল ফিতরে ঘরমুখো মানুষের বাড়ি ফেরা নির্বিঘ্ন করতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের আহবান «» শিশু-কিশোরদের জন্য সাংস্কৃতিক কার্যক্রম বাড়াতে হবে : বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার আওয়ামী লীগের জনপ্রিয় নেতাদের হত্যার মাধ্যমে নেতৃত্ব শূন্য করতে চেয়েছিল

নিউজ ডেস্ক:- বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার আওয়ামী লীগের জনপ্রিয় নেতাদের হত্যার মাধ্যমে নেতৃত্ব শূন্য করতে চেয়েছিল।
আজ বিকেলে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ১৫তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে স্বাধীনতা অফিসার্স ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন আয়োজিত এক আলোচনা ও দোয়া অনুষ্ঠানে বক্তারা একথা বলেন।
বক্তারা বলেন, জাতির পিতার আদর্শের সৈনিক ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের হত্যার অংশ হিসেবে স্বাধীনতা বিরোধীরা নীল নকশার অংশ হিসেবে এসব হত্যাযজ্ঞ শুরু করে। তারই ধারাবাহিকতার অংশ ২০০৪ সালের ২১ মে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার জন্য গ্রেনেড হামলা করা হয়েছিল। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের মদদপুষ্ট একদল সন্ত্রাসী আওয়ামী লীগের জনপ্রিয় নেতাদের হত্যা নেতৃত্ব শূণ্য করতে চেয়েছিল। কিন্তু তারা সফল হয়নি, তবে তাদের চক্রান্ত সম্পর্কে সজাগ ও সতর্ক থাকতে হবে।
মতিঝিলের যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে এই আলোচনা ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি। এতে সভাপতিত্ব করেন যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ফারুক আহমদ। মুখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড.আ.আ.ম.স আরেফিন সিদ্দিক।
বক্তারা বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একজন আদর্শের কর্মী হিসেবে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের মতো রাজনৈতিক নেতাদের গুণাবলী নিয়ে আলোচনা হলে নতুন প্রজন্মের জন্য তা প্রেরণার উৎস হয়ে ওঠবে। একজন শিক্ষক থেকে তৃণমুল পর্যায় থেকে জনপ্রতিনিধি হয়ে দেশসেবায় তিনি যেসব গুণাবলী অর্জন করেছেন তা আগামী দিনের নতুন নেতৃত্বের কাছে আদর্শের পাথেয় হতে পারে।’
সভায় অন্যান্যের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মো. জাফর উদ্দীন, আওয়ামী লীগের সাবেক শ্রম বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক এমপি কাজী মোজাম্মেল হক, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের পরিচালক আ.ন.আহমদ আলী, স্বাধীনতা অফিসার্স ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের সভাপতি আবদুল হামিদ খান ও সাধারণ সম্পাদক আলী আশরাফ।

Share Button
সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত : সিএনআই২৪ ডটকম লিমিটেড || Desing & Developed BY Themesbazar.com