,

শিরোনাম :
«» মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যার প্রধান চ্যালেঞ্জ নিন্দা ও কুসংস্কার : সায়মা «» বগুড়া-৬ আসনে বেগম খালেদা জিয়াসহ ৫ জনের দলীয় মনোনয়ন সংগ্রহ «» ক্রয় সংক্রান্ত্র মন্ত্রিসভা উপ-কমিটির তিনটি সরকারি ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন «» বাংলাদেশ গেজেট, মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল অনুসারে গেজেট প্রকাশের দিন থেকে পরবর্তী সময়ে রির্টান এর ফি ও জরিমানা কার্যকর করলে ব্যবসায়ীদের জন্য ব্যবসা সহজী করন হবে। «» পা হারানো রাসেলকে ক্ষতিপূরণের বাকি টাকা আজও দেয়নি গ্রিনলাইন : আদালতের ক্ষোভ «» জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় বাংলাদেশকে গুরুত্ব দেয়ার আহবান স্পিকারের «» ভারতের জনগণ যাকেই নির্বাচিত করুক তার সঙ্গেই বিদ্যমান সম্পর্ক অব্যাহত থাকবে : কাদের «» আইন অনুযায়ী কেরানীগঞ্জে আদালত স্থাপন করা হয়েছে : তথ্যমন্ত্রী «» নবম ওয়েজ বোর্ড দ্রুত হয়ে যাবে : তথ্য প্রতিমন্ত্রী «» যুদ্ধ নয়, বাধা দিতেই ইরানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান : পেন্টাগণ প্রধান

১০০ দিনের কর্মসূচি পুরোটাই বাস্তবায়নে সক্ষম হয়েছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক:-মন্ত্রণালয় ঘোষিত ১০০ দিনের কর্মসূচি পুরোটাই বাস্তবায়ন করতে সক্ষম হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, ‘সরকারের নির্বাচনি ইশতেহারের ভিত্তিতে আমরা ১০০ দিনের কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করেছিলাম। এই কর্মসূচি আমরা পুরোটাই বাস্তবায়ন করতে সক্ষম হয়েছি। ইনশাআল্লাহ আগামী ১ বছরের কর্মসূচিও খুব শিগগিরই প্রকাশ করা হবে।’
স্বাস্থ্যমন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের ১০০ দিনের কর্মসূচির মেয়াদ পূর্তি উপলক্ষে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
জাহিদ মালেক বলেন, প্রতিটি হাসপাতালকে মনিটরিংয়ের আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে। চিকিৎসকদের উপস্থিতির হার ৪০ শতাংশ থেকে ৭৫ শতাংশে উন্নীত করা সম্ভব হয়েছে। আমরা আশা করছি, শিগগিরই চিকিৎসকদের উপস্থিতির হার একশ ভাগে চলে আসবে। শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের কার্যক্রম আগামী ১৫ জুলাইয়ের মধ্যে শুরু হবে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিশেষায়িত এই হাসপাতালের জন্য যন্ত্রপাতি এরই মধ্যে এসে গেছে। সেগুলো বসানোর কাজ চলছে। আমরা আশা করছি, আগামী ১৫ জুলাইয়ের মধ্যে এই হাসপাতালের কার্যক্রম পুরোপুরিভাবে শুরু করা সম্ভব হবে। এখনও রোগীর সেবা দেওয়া হচ্ছে তবে কম পরিসরে।
তিনি বলেন, ইতোমধ্যে সাড়ে তিনশ চিকিৎসককে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। দেশের হাসপাতালগুলোতে চার হাজার ৭৯২ জন চিকিৎসক নিয়োগের জন্য সুপারিশের অনুমোদন দিয়েছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। চলতি বছরের মধ্যে এসব চিকিৎসক নিয়োগ শেষে আগামী বছর আরো প্রায় পাঁচ হাজার নিয়োগ দেয়া হবে।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, প্রতিটি হাসপাতালের সেবার মূল্যতালিকা টাঙানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া প্রতিটি হাসপাতালের ওয়েবসাইট খোলা হয়েছে। সেখানে যে কেউ অভিযোগ বা পরামর্শ দিতে পারবেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় খুব শিগগিরই প্রতিটি বিভাগে ১০০ শয্যার একটি করে ক্যান্সার-কিডনী হাসপাতাল স্থাপন করা হবে। স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলামের সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Share Button
সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত : সিএনআই২৪ ডটকম লিমিটেড || Desing & Developed BY Themesbazar.com