,

শিরোনাম :
«» বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে হারের বৃত্তেই আটকে থাকলো ইংল্যান্ড «» সড়ক ও রেলপথের সেতুর অবকাঠামো জরিপের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর «» হাতে ট্রলি আর কাঁধে ব্যাগ নিয়ে গভীর রাতে বিমানবন্দরে মালাইকা-অর্জুন! «» একনেকে রেলওয়ের আধুনিকায়নসহ ১০ প্রকল্প অনুমোদন «» প্রমাণিত হয়েছে ইভিএমে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব : তথ্যমন্ত্রী «» পেশাদারিত্বের সাথে দায়িত্ব পালনে ডিএমপি কমিশনারের নির্দেশনা «» দেশে মানবতাবাদী শক্তিকে সাম্প্রদায়িক জঙ্গিবাদী শক্তি হুমকি দিয়ে যাচ্ছে : ওবায়দুল কাদের «» বিনামূল্যে ২৯৬ কোটি ৭ লাখ ৮৯ হাজার ১৭২ কপি বই বিতরণ করা হয়েছে : শিক্ষামন্ত্রী «» রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বেইজিং গঠনমূলক ভূমিকা রাখবে : প্রধানমন্ত্রীকে চীনের রাষ্ট্রদূত «» রাষ্ট্রপতির কাছে দুই দূতের পরিচয়পত্র পেশ

কাজী নজরুলের স্বপ্ন বাস্তবায়িত হচ্ছে : শিক্ষামন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক:-শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ বাংলাদেশে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের স্বপ্ন বাস্তবায়িত হচ্ছে।
আজ শনিবার বিকালে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের স্মৃতি বিজড়িত ময়মনসিংহের ত্রিশালের দরিরামপুরের নজরুল মঞ্চে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের আয়োজনে কাজী নজরুল ইসলামের ১২০ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।
দীপু মনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের স্বপ্ন বাস্তবায়ন হলে কাজী নজরুল ইসলামের স্বপ্ন বাস্তবায়িত হবে। বঙ্গবন্ধু, শেখ হাসিনা ও কাজী নজরুলের স্বপ্ন এক সুতায় গাঁথা। তারা সবাই অসাপ্রদায়িক, স্বাধীন ও সমৃদ্ব বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখতেন। নজরুল ও বঙ্গবন্ধু উভয়েই শোষিতের পক্ষে ছিলেন।
তিনি বলেন, নজরুল তার লেখিনীতে যে সাম্যের ইঙ্গিত দিয়েছেন তা স্বাধীন, গণতন্ত্র, মানবতা এবং সুবিচারের এষণায় তীক্ষè, তীর্য, উজ্জ্বল। তার কল্পনা কখনো ধর্মীয় উদার, কখনো স্বাধীনতা, কখনও মানবতা আবার কখনো নৈরাজ্যকে স্পর্শ করেছে।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, সমাজবিধানের অসংগতি,স্ববিরোধিতা জাতিবৈষম্য, শ্রেণী বৈষম্যের বিরুদ্ধে তার কন্ঠ সব সময়ই সোচ্চার ছিল। এ সকল কিছুর মূল ছিল মানবমুক্তি ও মানব কল্যান।
শনিবার থেকে ত্রিশালে জাতীয় কবির ১২০ তম জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে শুরু হয়েছে তিন ব্যাপী জাতীয় পর্যায়ের কর্মসুচি। এবারের নজরুল জন্মবার্ষিকীর স্লোগান হল ‘নজরুল চেতনায়- বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ’।
সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ রুহুল আমিন মাদানী এমপি, ভারতের বিশ্বভারতী বিশ্বিবিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক বিদ্যুত চক্রবর্তী বক্তব্য রাখেন।
অনুষ্ঠানে স্মারক বক্তা ছিলেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. বিশ্বজিৎ ঘোষ এবং স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব ড. মো আবু হেনা মোস্তফা কামাল।
কে এম খালিদ বলেন, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের সংগীত, সাহিত্য ও রাজনৈতিক দর্শন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে আন্দোলন, সংগ্রাম ও মানবিক সমাজ প্রতিষ্ঠায় যুগিয়েছে অনাবিল অনুপ্রেরণা। জাতির পিতা ছিলেন এ মহান কবির একান্ত অনুরক্ত।
তিনি বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার পরপরই জাতির পিতার ঐকান্তিক উদ্যোগে কবি কাজী নজরুল ইসলামকে কলকাতা হতে ঢাকায় এনে জাতীয় কবির মর্যাদায় অধিষ্ঠিত করা হয় এবং তাঁর চল্ চল্ চল্ সংগীতকে রণসংগীত হিসাবে গ্রহণ করা হয়।
বিদ্যুৎ চক্রবর্তী বলেন, কবি নজরুল দুই বাংলাকে আলাদা করে দেখতেন না। তিনি দুই বাংলাকে এক করতে চেয়েছিলেন।

Share Button
সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত : সিএনআই২৪ ডটকম লিমিটেড || Desing & Developed BY Themesbazar.com