,

শিরোনাম :
«» আমরা এখনো এই দেশকে ভালোবাসি : নিউজিল্যান্ডে আক্রান্ত মসজিদের ইমাম «» যুক্তরাষ্ট্রে কিউবানদের ভিসার মেয়াদ কমছে «» ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলাকারী ব্রেন্টন টারান্টকে কোর্টে হাজির করা হয়েছে «» বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা দেশের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন «» ইজি লাইফ ই-কর্মাস লিমিটেডে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০১৯ «» নিউজিল্যান্ডে মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার নিন্দায় বাংলাদেশ «» নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ মসজিদে হামলাকারী কে?, কেন এই হামলা? «» নিরাপত্তার নিশ্চয়তা ছাড়া আর কোনো বিদেশ সফর নয় : নাজমুল হাসান এমপি «» মুজিবনগরে বিশ্বমানের পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী «» ভাল ফলাফলই শিক্ষার একমাত্র উদ্দেশ্য হতে পারে না : শিক্ষামন্ত্রী

বিপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে চ্যাম্পিয়ন রংপুরকে হারিয়ে শুভ সূচনা করলো চিটাগং

স্পোর্ট ডেস্ক:- বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ষষ্ঠ আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে চ্যাম্পিয়ন রংপুর রাইডার্সকে হারিয়ে শুভ সূচনা করলো চিটাগং ভাইকিংস। মুশফিকুর রহিমের চিটাগং ৩ উইকেটে হারিয়েছে মাশরাফি বিন মর্তুজার রংপুরকে।
মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং-এর সিদ্বান্ত নেন চিটাগং ভাইকিংসের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। ব্যাট হাতে শুরুটা ভালো হয়নি রংপুরের। চিটাগং-এর দক্ষিণ আফ্রিকার মিডিয়াম পেসার রবি ফ্রাইলিংকে বোলিং তোপের সাথে অন্যান্য বোলারদের নৈপুণ্যে ৩৫ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে ফেলে রংপুর।
রংপুরের মেহেদি মারুফ ১, ইংল্যান্ডের অ্যালেক্স হেলস-উইকেটরক্ষক মোহাম্মদ মিথুন শূন্য, দক্ষিণ আফ্রিকার রিলি রোসৌ ৭, ইংল্যান্ডের বেনি হাওয়েল ৮, ফরহাদ রেজা ৩ ও অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা ২ রান করে ফিরেন।
এরপর দলকে দ্রুত গুটিয়ে যাবার হাত থেকে রক্ষা করেন ইংল্যান্ডের রবি বোপারা ও সোহাগ গাজী। অষ্টম উইকেটে ৪৯ রানের জুটি গড়েন তারা। ১০ রানের ব্যবধানে এই দু’জন বিদায় নিলে ইনিংসের শেষ বল পর্যন্ত খেলে ৯৮ রান পর্যন্ত যেতে সক্ষম হয় রংপুর রাইডার্স। বোপারা ৩টি চার ও ২টি ছক্কায় ৪৭ বলে ৪৪ ও গাজী ২১ রান করেন। রংপুরের বোপারা-গাজীই শুধুমাত্র দু’অংকের কোটা স্পর্শ করেন। চিটাগং-এর ফ্রাইলিংক ১৪ রানে ৪ উইকেট, আবু জায়েদ-নাইম হাসান ২টি করে উইকেট নেন।
জবাবে ভালো শুরু করতে পারেনি চিটাগংও। ১৯ রানে ২ উইকেট হারায় তারা। তবে ওপেনার আফগানিস্তানের আহমেদ শেহজাদ ও অধিনায়ক মুশফিকুর শুরুর ধাক্কা সামাল দিয়ে দলকে জয়ে পথে রাখেন। তবে দলীয় ৫১ রানে শেহজাদের ফিরে যাবার পর দ্রুত আর দুই উইকেট হারায় চিটাগং।
শেহজাদ ২৭, জিম্বাবুয়ের সিকান্দার রাজা ৩ ও মোসাদ্দেক হোসেন ২ রান করে ফিরেন। এক পর্যায়ে ৬২ রানে ৫ উইকেট হারায় চিটাগং। এ অবস্থায় দলকে জয়ের পথে নিয়ে যেতে থাকেন মুশফিক ও নাইম হাসান। কিন্তু বেশি দূর যেতে পারেননি তারা। ৮৫ রানের মধ্যে ফিরে যান দু’জনই। মুশফিক ২৫ ও নাইম ১০ রান করে ফিরেন। এসময় হাতে ৩ উইকেট নিয়ে জয় থেকে ১৪ রান দূরে দাঁড়িয়ে চিটাগং। বল বাকী ছিলো ২০টি।
অষ্টম উইকেটে ফ্রাইলিংক-সানজামুল প্রয়োজনীয় রান তুলে দলের জয় নিশ্চিত করেন। ফ্রাইলিংক ১টি চারে ১০ বলে অপরাজিত ১২ ও সানজামুল অপরাজিত ৭ রান করেন। রংপুরের মাশরাফি ২৪ রানে ২ উইকেট নেন।
সংক্ষিপ্ত স্কোর :
রংপুর রাইডার্স : ৯৮/১০, ২০ ওভার (বোপারা ৪৪, গাজী ২১, ফ্রাইলিংক ৪/১৪)।
চিটাগং ভাইকিংস : ১০১/৭, ১৯.১ ওভার (শেহজাদ ২৭, মুশফিক ২৫, মাশরাফি ২/২৪)।
ফল : চিটাগং ভাইকিংস ৩ উইকেটে জয়ী।
ম্যাচ সেরা : রবি ফ্রাইলিংক(চিটাগং ভাইকিংস)।

Share Button
সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত : সিএনআই২৪ ডটকম লিমিটেড || Desing & Developed BY Themesbazar.com