×
ব্রেকিং নিউজ :
বাঙালি জাতিরাষ্ট্র প্রতিষ্ঠাতা বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্বনেতা : তথ্যমন্ত্রী বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী কল্যাণ ট্রাস্ট আইনের খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন সরকার প্রশাসনকে মুখোশ পরিধানের ব্যাপারে আইন প্রয়োগ ও সচেতনতা সৃষ্টির নির্দেশ দিয়েছে : মন্ত্রিপরিষদ সচিব বঙ্গবন্ধুই সাংবাদিকদের জন্য প্রেস ইনষ্টিটিউট গঠন করেছিলেন: হানিফ করোনা ভ্যাকসিন আগে পাওয়াই এখন সরকারের মূল লক্ষ্য : স্বাস্থ্যমন্ত্রী পানামায় আকস্মিক বন্যায় একই পরিবারের ১১ জনের প্রাণহানি আফগানিস্তানে বোমা হামলায় ৮ বেসামরিক নাগরিক নিহত বুধবার থেকে শারিরীক উপস্থিতি এবং ভার্চুয়ালি বিচারকার্য পরিচালনায় হাইকোর্ট বেঞ্চ গঠন ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির কোভিড-১৯ পজেটিভ ডিসেম্বরের মধ্যে দক্ষিণ সিটিকে জঞ্জালমুক্ত করা হবে : মেয়র তাপস
  • আপডেট টাইম : 21/07/2020 03:37 PM
  • 64 বার পঠিত

রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে আগুনে পুড়ে মারা যাওয়া ৫ ব্যক্তির মধ্যে চার ব্যক্তির পরিবারকে ৩০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দিতে হাইকোর্ট আদেশ আগামী ১৬ আগস্ট পর্যন্ত স্থগিত করেছেন চেম্বার কোর্ট ।
সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের চেম্বার কোর্ট বিচারপতি মো. নুরুজ্জামান হাইকোর্ট আদেশ বিষয়ে আনা এক আবেদনের প্রেক্ষিতে আজ এ আদেশ দেন।
আদালতে ইউনাইটেড হাসপাতালের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ, ব্যারিস্টার মোস্তাফিজুর রহমান খান। রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ব্যারিস্টার হাসান এম এস আজিম, ব্যারিস্টার মুনতাসির উদ্দিন আহমেদ, ব্যারিস্টার অনিক আর হক, নিয়াজ মোহাম্মদ মাহবুব।
ইউনাইটেড হাসপাতালে আগুনে পুড়ে মারা যাওয়া ৫ ব্যক্তির মধ্যে চার ব্যক্তির প্রত্যেক পরিবারকে ৩০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেয়ার জন্য হাইকোর্ট গত ১৪ জুলাই আদেশ দেন। ১৫ দিনের মধ্যে এই টাকা পরিশোধ করতে বলা হয়। ওই ঘটনায় মারা যাওয়া মনির হোসেনের পরিবার ইউনাইটেড হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমঝোতা করায় তার ক্ষতিপূরণ বিষয়ে কোনো আদেশ দেননি আদালত। হাইকোর্ট আদেশ স্থগিত চেয়ে আবেদন করে ইউনাইটেড হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।
আগুনে পুড়ে মারা যাওয়া ৫ ব্যক্তির আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে সমঝোতা করার গত ২৯ জুন নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। ১২ জুলাইয়ের মধ্যে তাদেরকে সমঝোতায় আসতে বলা হয়। নিহত সবার পরিবারের সঙ্গে সমঝোতা না করায় হাইকোর্ট ওই আদেশ দেন।
রাজধানীর গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ইউনিটে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় পাঁচ জনের মৃত্যুর ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে গত ১ জুন হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়।
সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার রেদোয়ান আহমেদ রানজীব, ব্যারিস্টার হামিদুল মিসবাহ ও নিয়াজ মাহমুদ জনস্বার্থে পৃথক রিট দায়ের করেন।
গত ২৭ মে রাতে রাজধানীর গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ইউনিটে এসি বিস্ফোরণের আগুনে পাঁচ জনের মৃত্যু হয়। মারা যাওয়া রোগীরা হলেন- রিয়াজুল আলম (৪৫), খোদেজা বেগম (৭০), ভেরুন অ্যান্থনি পল (৭৪), মো. মনির হোসেন (৭৫), মো. মাহাবুব (৫০)।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...