×
ব্রেকিং নিউজ :
বৈরুত বিস্ফোরণে প্রাণহানিতে প্রধানমন্ত্রীর শোক শেখ কামালের আদর্শ যুব সমাজের জন্য এক উজ্জ্বল আলোক বর্তিকা : রাবাব ফাতিমা এপ্রিল-জুনে বিদেশী বিনিয়োগ প্রস্তাব বেড়েছে ৫৩৭.৫১ শতাংশ চসিক প্রশাসকের দায়িত্ব নিলেন সুজন সাবরিনা-আরিফসহ আট জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন ১৩ আগস্ট বিনিয়োগ আকৃষ্ট করতে সর্বোচ্চ আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর স্যোশাল মিডিয়ার সার্ভিস প্রোভাইডাররা অপব্যবহারের দায় এড়াতে পারে না : তথ্যমন্ত্রী কক্সবাজারে সেনাবাহিনী ও পুলিশের যৌথ টহল পরিচালনা করা হবে : আইএসপিআর স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদকে দুদকে তলব সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলার সাত আসামিকে কারাগারে প্রেরণ
  • আপডেট টাইম : 30/07/2020 07:51 PM
  • 46 বার পঠিত

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে অজ্ঞান পার্টির ৫৯ জন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে।বুধবার রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।
এবিষয়ে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর মিন্টুরোডস্থ ঢাকা মহানগর পুলিশের(ডিএমপি) পাবলিক রিলেসন্স ও মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। এসময় মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ডিবি) মো: আবদুল বাতেন সাংবাদিকদের জানান, বুধবার অভিযানকালে ডিএমপির গোয়েন্দা ওয়ারী বিভাগ ১৬জন, সাইবার এন্ড স্পেশাল ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগ ১০জন, গোয়েন্দা মতিঝিল বিভাগ ৯জন, গোয়েন্দা রমনা বিভাগ ৮জন, গোয়েন্দা লালবাগ বিভাগ ৮জন ও গোয়েন্দা তেজগাঁও বিভাগ ৮জনসহ মোট ৫৯ জন অজ্ঞান পার্টির সদস্যকে গ্রেফতার করেছে।
আবদুল বাতেন বলেন, এসময় তাদের কাছ থেকে ২৪০ পিস চেতনানাশক ট্যাবলেট, ৪টি তরল মুভ স্পে বোতল, ৯টি মলমের কৌটা, ৭টি হারবাল পেইন কিলার, ৫টি চাকু, ৯টি চেতনানাশক হালুয়া,গুল, মরিচের গুড়া ও জামবাগ উদ্ধার করা হয়।
ডিবির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার সাংবাদিকদের বলেন, অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা চেতনানাশক ঔষধ বা লিকুইড কৌশলে চা, ডাব, পানীয় বা অন্যকোন খাবারের সাথে মিশিয়ে টার্গেটকৃত ব্যক্তিকে খাওয়ায় এবং পরে তারা অচেতন হয়ে পড়লে সর্বস্ব লুটে নেয়। এছাড়াও তারা গুল, মরিচের গুড়া বা মলম চোখে মাখিয়ে মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে যায়।
সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আবদুল বাতেন বলেন, এই চক্রের সদস্যরা সাধারণত বেশি মানুষের সমাগম হওয়ার স্থানে তৎপর থাকলেও কোরবানির পশুর হাটকে কেন্দ্র করে তারা তৎপর ছিল।
তিনি বলেন,ঈদকে কেন্দ্র করে প্রতি বছরই অজ্ঞান পার্টির দৌরাত্ম্য বাড়ে। তাই বিশেষ অভিযানের অংশ হিসেবে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গোয়েন্দা বিভাগ ২/৩ দিন যাবৎ এদের ধরতে কাজ করেছে। আমরা আশা করছি অজ্ঞান পার্টির এই সদস্যরা গ্রেফতার হওয়ার ফলে পশুর হাটের কেনা-বেচা নিরাপদ হবে।
এ ব্যাপারে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...