Logo
×
ব্রেকিং নিউজ :
শহীদ শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন আজ প্রবাসী কর্মীদের জন্য সাপোর্ট সেন্টার স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে : প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী স্কটল্যান্ডের কাছে লজ্জার হার বাংলাদেশের ইতালি ও রাশিয়া সফর শেষে দেশে ফিরলেন স্পিকার ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার চূড়ান্ত ফল প্রকাশ পর্দা উঠল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সপ্তম আসরের জার্মানি জলবায়ু ও জ্বালানি ইস্যুতে বাংলাদেশকে সাহায্য করতে আগ্রহী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সশরীরে পাঠদান ও পরীক্ষা কার্যক্রম শুরু রোহিঙ্গা ও আটকে পড়া পাকিস্তানিরা বাংলাদেশের অর্থনীতিতে চাপ সৃষ্টি করছে : প্রধানমন্ত্রী দেশে ২০৩০ সালের মধ্যে দেশে ১৪০ মিলিয়ন কেজি চা উৎপাদনের পরিকল্পনা
  • আপডেট টাইম : 06/10/2021 08:26 PM
  • 29 বার পঠিত

ফেসবুক বিভক্তি উস্কে দিচ্ছে, শিশুদের ক্ষতি করছে এবং গণতন্ত্রকে দুর্বল করছে। এসব অভিযোগ ফেসবুকের এক সাবেক কর্মীর। তিনি ‘হুইসেলব্লাওয়ারের’ ভূমিকায় গিয়ে মঙ্গলবার ক্যাপিটল হিলের শুনানিতে মার্কিন আইনপ্রণেতাদের কাছে ফেসবুকের তীব্র সমালোচনা করে একে নিয়ন্ত্রণের দাবি জানান।
ফ্রান্সেস হাউগেন (৩৭) একসময় ফেসবুকের পণ্য ব্যবস্থাপক ছিলেন। সাম্প্রতিক সময়ে তিনি ফেসবুকের অভ্যন্তরীণ অনেক নথি গণমাধ্যমের কাছে প্রকাশ করেন। রোববার সিবিএস নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে হাউগেন জানান, তিনি ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে ফেসবুকের বেশকিছু আভ্যন্তরীণ নথি দিয়েছেন।এছাড়া মঙ্গলবারের শুনানিতে দেওয়া সাক্ষ্যেও হাউগেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটির নানা নেতিবাচক দিক তুলে ধরেন। 
বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক। মাধ্যমটির মাসিক সক্রিয় ব্যবহারকারী ২৭০ কোটি।
সাম্প্রতিক বছরগুলোতে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে ব্যবহারকারীর গোপনীয়তা রক্ষায় ব্যর্থতা এবং গুজব ছড়ানো রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘কোম্পানির নেতৃত্ব জানে কীভাবে ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামকে নিরাপদ রাখা যায়; কিন্তু তারা এ জন্য প্রয়োজনীয় পরিবর্তনগুলো করবে না। কারণ তারা আকাশচুম্বী লাভকে মানুষের ওপর স্থান দিয়েছে।’তিনি ফেসবুকে মার্ক জাকারবার্গের একচ্ছত্র কর্তৃত্ব নিয়েও সমালোচনা করেন।শুনানিতে থাকা রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাট আাইনপ্রণেতাদের উদ্দেশ্যে হাউগেন বলেন,‘আমাদের এখনই পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।’এদিকে প্রতিষ্ঠানটির সহ প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ সকল অভিযোগই অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, ফেসবুকের বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ করা হচ্ছে, তার বেশিরভাগই ‘ভিত্তিহীন’।তিনি আরো বলেন, ফেসবুক ক্ষতিকর কন্টেন্টের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে, স্বচ্ছতাও বজায় রাখছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...