Logo
×
ব্রেকিং নিউজ :
রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘ বাংলাদেশকে অব্যাহত সমর্থন দিবে সব মানুষের ডিজিটাল নিরাপত্তার জন্যই আইন : তথ্যমন্ত্রী ও সম্প্রচার একশ’ বছরের পথ পরিক্রমায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় জাতিকে যা দিয়েছে তা নিঃসন্দেহে গর্ব ও গৌরবের : রাষ্ট্রপতি করযোগ্য ব্যক্তিদের কর দিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়াতে বললেন আইনমন্ত্রী আখাউড়া-আগরতলা রেল রুট পুনরায় চালুর ওপর গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর ষাটোর্ধদের বুস্টার ডোজ দেয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢাবি’র শতবর্ষপূর্তি ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উৎসবের উদ্বোধন আগামীকাল ১৬ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচন সরকার শিক্ষার সমান সুযোগ নিশ্চিত করতে কাজ করে যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এক জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৭৩ জন
  • আপডেট টাইম : 23/11/2021 06:16 PM
  • 32 বার পঠিত

শিক্ষা উপমন্ত্রী  মহিবুল হাসান চৌধুরী  বলেছেন, দেশের কারিগরি শিক্ষা ব্যবস্থার আরো উন্নয়ন করা প্রয়োজন।
আজ রাজধানীর আগারগাঁও পর্যটন ভবনে ‘বাংলাদেশের কারিগরি শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়ন : জার্মানির অভিজ্ঞতা  থেকে শিক্ষা’ শীর্ষক পলিসি পেপার উপস্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন। এসএমই ফাউন্ডেশন ও জার্মান উন্নয়ন সংস্থা এফইএস, বাংলাদেশ এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
উপমন্ত্রী বলেন, মানসম্মত কারিগরি শিক্ষা নিশ্চিত করতে ইতোমধ্যে কারিক্যুলাম পরিবর্তন, শিল্পের চাহিদা অনুসারে কার্যকর ও বিষয়ভিত্তিক কোর্সের সংখ্যা বাড়ানোসহ নানা উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।
তিনি আরো বলেন, কারিগরি খাতে শিক্ষক কর্মচারির শূন্য পদ পূরণ করে ব্যাপক সংখ্যায় নতুন প্রতিষ্ঠান স্থাপন করার কাজ এগিয়ে চলেছে।  মানসম্মত কারিগরি শিক্ষা নিশ্চিত করা সরকারের অন্যতম অগ্রাধিকার বলেও জানান শিক্ষা উপমন্ত্রী।
অনুষ্ঠানে কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মো. হেলাল উদ্দিন বলেন, বর্তমানে ৬৪টি জেলায় সরকারের কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। সরকার প্রথম ধাপে ১০০টি উপজেলায় এবং দ্বিতীয় ধাপে ৩২৯টি উপজেলায় তা সম্প্রসারণের উদ্যোগ নিয়েছে।
তিনি আরো বলেন, তবে বিদ্যমান সব কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মান বজায় রাখতে প্রতিষ্ঠানগুলোকে এ, বি ও সি ক্যাটাগরিতে রেটিং করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।
এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপার্সন অধ্যাপক ড. মোঃ মাসুদুর রহমান বলেন, দেশে প্রায় সাড়ে ১০ হাজার কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থাকলেও শিল্প মালিকদের চাহিদা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কারিক্যুলামের মধ্যে দূরত্ব ঘুচিয়ে বিষয়ভিত্তিক প্রশিক্ষণ, ইন্টার্নশীপ ও ব্যবহারিক জ্ঞান বাড়ানো প্রয়োজন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...