×
ব্রেকিং নিউজ :
প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আম্পায়ার শরফুদ্দৌলা পুঁজিবাজারে জেন্ডার গ্যাপ দূর করতে হবে : স্পিকার রাজধানীর বাড্ডায় বোমা তৈরির কারখানার সন্ধান, অভিযান চালাচ্ছে র‌্যাব মুন্সীগঞ্জে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ২ স্কুলছাত্র নিহত সিলেট থেকে ৩৮৯ হজযাত্রী নিয়ে প্রথম হজ ফ্লাইটের সরাসরি মদিনা যাত্রা ভারতে সংসদ সদস্য আনার হত্যার ঘটনায় রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থানায় মামলা দায়ের খাগড়াছড়িতে বুদ্ধ পূর্ণিমা পালিত ইশরাত ওয়ারিশ ব্রিটিশ এশিয়ান ট্রাস্টে প্রথম বাংলাদেশি পরিচালক গণহত্যার সমর্থকদের নিষেধাজ্ঞা নিয়ে মাথাব্যথা নেই: ওবায়দুল কাদের নিজের জন্মদিনে শুভেচ্ছা ও ভালবাসায় সিক্ত হয়ে সকলের প্রতি রাদওয়ান মুজিবের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ
  • প্রকাশিত : ২০২৩-০১-২৯
  • ৩৮০ বার পঠিত
  • নিজস্ব প্রতিবেদক

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন বলেছেন, জলবায়ু পরিবর্তনে স্থানীয়ভাবে জীবন-জীবিকা ক্ষতিগ্রস্থ জনগোষ্ঠীর টেকসই জীবিকা নিশ্চিত করতে কর্মপরিকল্পনা প্রনয়নে কাজ করছে সরকার।
তিনি বলেন, বাস্তুচ্যুত লোকজন দূরবর্তী এলাকায় চলে যাওয়ার বিষয়ে জানতে গবেষণা প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট ফান্ডের অর্থায়নে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এই গবেষণা প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। এ প্রকল্পের আওতায় গবেষণালব্ধ জ্ঞান, স্থানীয় অর্থনৈতিক ভিত্তি এবং স্থানীয়ভাবে অভিযোজনের সুযোগ করে এমন একটি কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করা হবে।
মন্ত্রী আরো বলেন,  এই প্রকল্পে প্রাপ্ত সুপারিশের মাধ্যমে সরকার কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। গবেষণা কার্যক্রমের ফলাফল জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব মোকাবিলায় অবদান রাখবে। 
শাহাব উদ্দিন আজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের মিলনায়তনে জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট ফান্ডের অর্থায়নে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে বাস্তবায়িত “জলবায়ু পরিবর্তনজনিত বাস্তুচ্যুতদের স্থানীয়ভাবে অভিযোজনের জন্য টেকসই জীবিকার কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন” শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় আয়োজিত এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
শাহাব উদ্দিন বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব মোকাবেলায় বর্তমান সরকার  জলবায়ু পরিবর্তন কৌশল ও কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করেছে। এ কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নে এ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট মোট ৮শত ৫১টি প্রকল্প গ্রহণ করেছে। 
মন্ত্রী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে বদলে যাচ্ছে দেশের ভৌগলিক চিত্র, ক্রমশ ঝুঁকির মুখে পড়ছে উপকূলীয় অঞ্চল ও নদীকেন্দ্রিক জীবিকা। ২০১৮ সালের এক গবেষণা অনুযায়ী নদী ভাঙনের কবলে পড়ে প্রতি ১০০ জনে ১ দশমিক ৬ জন পুরুষ ও  দশমিক ৯ জন নারী শহরমুখী হচ্ছে।
তিনি বলেন, সপরিবারে শহরমুখী হওয়ার সংখ্যা সবচেয়ে বেশি।  প্রতিনিয়ত নগরায়ণ, কৃষিজমিতে শিল্পায়ন, উপকূলীয় অঞ্চলে জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে মাটিতে লবণাক্ততা বৃদ্ধিতে ক্রমশ কমছে কৃষিকাজ। 
তিনি আরো বলেন, কৃষিকাজে সম্পৃক্ত বিশাল একটি অংশ জীবিকার তাগিদে দ্রুত শহরমুখী হচ্ছে। শহরমুখী এই জন¯্রােত বন্ধ করে স্থানীয়ভাবে তাদের জীবিকার ব্যবস্থা গ্রহণে সরকার কাজ করবে।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডক্টর মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে অন্যদের মধ্যে  বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নুরুন নাহার হেনা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. শহীদুল ইসলাম, প্রকল্প পরিচালক ও ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক ড. নুরুল ইসলাম নাজেম প্রমুখ। 
প্রকল্পের সংক্ষিপ্ত ফলাফল উপস্থাপন করেন ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক ডক্টর হুমায়ুন কবির। 
এছাড়াও বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, গবেষক এবং সরকারি-বেসরকারি সংস্থার প্রতিনিধিবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...
#
ক্যালেন্ডার...

Sun
Mon
Tue
Wed
Thu
Fri
Sat