,

শিরোনাম :
«» ড. কামাল হোসেনের দুঃখ প্রকাশ «» রাষ্ট্রপতির সাক্ষাৎ চেয়ে ঐক্যফ্রন্টের চিঠি «» বেশি পারিশ্রমিক পাওয়া নারী তারকাদের তালিকায় শীর্ষে দীপিকা! «» দীর্ঘ বিরতির পর ফের লঙ্কানদের নেতৃত্বে ফিরলেন লাসিথ মালিঙ্গা «» পরিবেশ দূষণ রোধে বরগুনার তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে সর্বাধুনিক ব্যবস্থা নিশ্চিত «» পশ্চিম জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসাবে স্বীকৃতি দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া «» বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন «» রাজধানীর গুলশানে পুলিশ প্লাজায় আগুন «» বিটিভি’র রাঙামাটি প্রতিনিধি মোস্তফা কামালের মৃত্যুতে তথ্য মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও সচিবের শোক «» চলচ্চিত্রকার ও অভিনেতা আমজাদ হোসেনের মৃত্যুতে মন্ত্রিবর্গের শোক

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মোহম্মদ মিথুনের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ

স্পোর্ট ডেস্ক:-দ্রুত চার উইকেট পতনের পর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মোহম্মদ মিথুনের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত চার উইকেট হারিয়ে ৭৮ রান সংগ্রহ করেছে টাইগাররা। মিথুন ৬৯ বলে ৩৪ ও মাহমুদুল্লাহ ৩১ বলে ২৪ রান নিয়ে ব্যাট করছেন। ইতিমধ্যে জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে ২৯৬ রানের লিড পেয়েছে বাংলাদেশ।

এর আগে বাংলাদেশের ইনিংসের শুরুতে জোড়া আঘাত আনেন কাইল জার্ভিস। জার্ভিসের অফ স্টাম্পের বাইরের শট বলে ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে ক্যাচ দিয়ে দেন ১২ বলে ৩ রান করা ইমরুল কায়েস। জার্ভিসের একই ওভারে ১২ বলে ৬ রান করে লিটন দাস বোল্ড হন। প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান মুমিনুল হক ৫ বলে ১ রান করে পেসার ডোনাল্ড তিরিপানোর অফ স্টাম্পের বাইরের শর্ট বল তাড়া করতে গিয়ে উইকেটকিপার রেগিস চাকাভাকে ক্যাচ দেন। প্রথম ইনিংসের ডাবল সেঞ্চুরিয়ান মুশফিক ১৯ বলে ৭ রান করে ডোনাল্ড তিরিপানোর বলে ডিপ স্কয়ার লেগে ধরা পড়েন।

বুধবার সকালে টেস্টের চতুর্থ দিন জিম্বাবুয়েকে ফলোঅন না করিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তার এ সিদ্ধান্তের প্রতিদান দিতে পারেনি বাংলাদেশের টপ অর্ডার ব্যাটম্যানরা।

টেস্টের তৃতীয় দিন তাইজুলের দুর্দান্ত বোলিংয়ে ৩০৪ রানে প্রথম ইনিংস গুটিয়ে যায় জিম্বাবুয়ের। প্রথম ইনিংসে ২১৮ রানে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ। যদিও জিম্বাবুয়েকে ফলোঅন করানোর সুযোগ ছিল।

মিরপুর স্টেডিয়ামে আগের দিনের এক উইকেটে ২৫ রান নিয়ে মঙ্গলবার তৃতীয় দিনে ফের প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং শুরু করে জিম্বাবুয়ে। তবে দিনের শুরুতে তারা খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি। মাত্র ১৩১ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে রীতিমতো ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে যায় দলটি। যার চারটিই নেন তাইজুল।

সেখান থেকে দলকে দারুণভাবে বের করে আনেন ব্রেন্ডন টেলর ও পিটার মুর। ষষ্ঠ উইকেটে এ দুজন ১৩৯ রানের দুর্দান্ত জুটি গড়েন। এরপর দলীয় ২৭০ রানে মুর ৮৩ রান করে আউট হলেও সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন টেলর। সেঞ্চুরি করলেও টেলর দলীয় ২৯০ রানে আউট হয়ে যান। এর আগেই ১৯৪ বল থেকে ১০টি চারের মারে তিনি করেন ১১০ রান।

দলীয় স্কোরে আর কোনো রান যোগ হওয়ার আগেই ফিরে যান ব্রেন্ডন মাভুতা। আর সবশেষ দলীয় ৩০৪ রানে রেগিস চাকাভার উইকেটটি নেন তাইজুল। তখনও টেন্ডাই চাতারার উইকেট হাতে ছিল জিম্বাবুয়ের। তবে চোট পাওয়ায় তিনি মাঠে নামেননি। এতে ৩০৪ রানেই দলটির প্রথম ইনিংসের পরিসমাপ্তি ঘটে। আরও ১৫ বল বাকি থাকলেও আম্পায়ারদ্বয় দিনের খেলার ইতি টানেন।

Share
সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত : সিএনআই২৪ ডটকম লিমিটেড || Desing & Developed BY Themesbazar.com