,

শিরোনাম :

ইরানে বিমান হামলার অনুমোদনের পরই সিদ্ধান্ত বাতিল যুক্তরাষ্ট্রের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:-ইরান যুক্তরাষ্ট্রের একটি ড্রোন গুলি করে ভূপাতিত করার পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্প বৃহস্পতিবার ইরানী লক্ষ্যবস্তুতে বিমান হামলার সিদ্ধান্ত অনুমোদনের পরপরই তা বাতিল করেছেন।
নিউইয়র্ক টাইমস’র রিপোর্টে বলা হয়, ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের ড্রোন ভূপাতিত করা ঘটনাকে ইরানের একটি “বিরাট ভুল” বলে অভিহিত করেন।
রিপোর্টে বলা হয়,বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সিনিয়র কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে ইরানের রাডার ও মিসাইল ব্যাটারির মতো বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ লক্ষ্যবস্তুতে বিমান হামলার পরিকল্পনা করা হয়েছিল তবে তাৎক্ষণিকভাবে এই সিদ্ধান্ত বাতিল করা হয়।
হোয়াইট হাউস এবং পেন্টাগন কর্মকর্তারা এ বিষয় কোন মন্তব্য করতে রাজি হয়নি উল্লেখ করে টাইমস জানায়,ভবিষ্যতে এধরণের হামলার কোন পরিকল্পনা আছে কিনা সেটি স্পষ্ট নয়।
ইরান এর আগে বলেছে, তাদের জলসীমায় ক্ষেপণাস্ত্রে ভূপাতিত যুক্তরাষ্ট্রের গ্লোবাল হক গোয়েন্দা ড্রোনের অংশগুলো উদ্ধার করা হয়েছে। তবে পেন্টাগন বলেছে, যখন ড্রোনটিতে হামলা করা হয় তখন এটি আন্তর্জাতিক জলসীমার উপর ছিল।
ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রী জাবেদ জাফরি বলেছেন, আমরা যুদ্ধ চাইনা, তবে আমরা আমাদের ভূমি,আকাশ ও জলসীমাকে অবশ্যই রক্ষা করবো।
অপর এক খবরে বলা হয়,ওয়াশিংটন পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত গালফ ও ওমান উপসাগরে ইরানের আকাশসীমা দিয়ে আমেরিকার বেসামরিক বিমান চলাচল বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে।
যুক্তরাষ্ট্রের এভিয়েশন কতৃপক্ষ জানায়,ইরানের ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষিপ্ত ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় যুক্তরাষ্ট্রের ড্রোন নামিয়ে আনার ঘটনা যুক্তরাষ্ট্রের বেসামরিক বিমান চলাচলের জন্য হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে।

Share Button
সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত : সিএনআই২৪ ডটকম লিমিটেড || Desing & Developed BY Themesbazar.com