,

শিরোনাম :
«» উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে প্রশাসনকে দুর্নীতিমুক্ত করতে চাই : মো. শাহাব উদ্দিন «» দলীয় কর্মীদের প্রতি তথ্যমন্ত্রী,বিজয়ে বিনয়ী হোন যাতে মানুষ ভালোবাসে «» আলোকচিত্র কথার চেয়ে শক্তিশালী : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী «» মৎস্য অভয়াশ্রমকে লিজ না দেওয়ার নির্দেশ মৎস্য প্রতিমন্ত্রীর «» কুয়েতে বাংলাদেশ দূতাবাসে সংঘটিত শ্রমিক সংক্রান্ত সমস্যা সমাধানে পদক্ষেপ গৃহীত «» জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট জোটে নীতি ও আদর্শের ঘাটতি আছে : ওবায়দুল কাদের «» আওয়ামী লীগের বিজয় এশিয়া ও বিশ্ব সম্প্রদায়ের জন্য ইতিবাচক ফল আনতে সহায়ক হবে : বিশেষজ্ঞগণ «» এরশাদের অবর্তমানে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব জিএম কাদেরের «» বিজয় সমাবেশ ঘিরে ডিএমপি’র ট্রাফিক নির্দেশনা «» আগামীকাল আওয়ামী লীগের বিজয় সমাবেশ

ব্যবসা-বাণিজ্য-কলকারখানায় ডিজিটাল রূপান্তর অনিবার্য : মোস্তাফা জব্বার

নিজস্ব প্রতিনিধি:-ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ব্যবসা-বাণিজ্য-কলকারখানায় ডিজিটাল রূপান্তর অনিবার্য। ডিজিটাল বাণিজ্যের দ্রুত প্রসারের ফলে শো-রুমভিত্তিক বাণিজ্য অতীতের বিষয় হিসেবে পরিলক্ষিত হবে।
মন্ত্রী আজ ঢাকায় বাংলাদেশ ডাক অধিদপ্তরের সদর দপ্তরে ই-ক্যাবের সহযোগিতায় ৬৪টি জেলা পোস্ট অফিসের ডিজিটাল কমার্স সেবা ই-পোস্ট চালু উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।
মন্ত্রী বলেন, ই-কমার্স নামে কোনো কিছু বিকশিত হবে গত তিন বছর আগেও তা ছিল কল্পনার বাইরে। সাধারণ মানুষের সাথে ই-কমার্সের সম্পৃক্ত হওয়ার বিষয়টিও ছিল অচিন্তনীয়। তিনি ই- কমার্সের বিকাশে ট্রেড বডিসমূহের অবদান তুলে ধরে বলেন, বাংলাদেশের ডিজিটাল রূপান্তরের যাত্রা শুরু হয় ১৯৯৬ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে। তাঁর তিন মেয়াদে ১৫ বছরের শাসনকালে ডিজিটাল শিল্প বিপ্লবের অগ্রযাত্রা জাতির বিস্ময়কর এক অর্জন। তিনি দেশের তৃণমূল পর্যন্ত ডাক বিভাগের সুবিস্তৃত অবকাঠামো কাজে লাগাতে ডাক অধিদপ্তর আধুনিকায়নের আবশ্যকতার ব্যাখ্যা করে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর দিকনির্দেশনায় ডাক বিভাগের দুর্বল জায়গাগুলো অতিক্রম করার কাজ শুরু হয়েছে। ডাককে ডিজিটাল ডাকে রূপান্তর করা সময়ের ব্যাপার মাত্র। তিনি ডাক অধিদপ্তরকে ডিজিটাল ডাকে রূপান্তর করা জন্য এর সাথে সম্পৃক্ত জনবলকে উপযোগী করে তৈরি করার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। মন্ত্রী দেশে ডিজিটাল অবকাঠামো সম্প্রসারণে গৃহীত কর্মসূচির বর্ণনা দিয়ে বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে এমন কোনো বাড়ি থাকবে না যেখানে দ্রুতগতির ইন্টারনেট পৌঁছাবে না। ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ ৫জি যুগে পৃথিবীর অন্যান্য দেশের সাথে সমান্তরালে প্রবেশ করবে। সরকার সে লক্ষ্যে কাজ করছে।
ডাক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সুশান্ত কুমার মন্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার, ই-ক্যাব সভাপতি শমী কায়সার এবং সেক্রেটারি জেনারেল আবদুল ওয়াহেদ তমাল বক্তৃতা করেন।

Share
সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত : সিএনআই২৪ ডটকম লিমিটেড || Desing & Developed BY Themesbazar.com