,

শিরোনাম :
«» যৌনতার বিনিময়ে ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ «» একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নের আবেদন ফরম বিতরণ কাল শেষ হচ্ছে «» নির্বাচন বিষয়ে টিআইবির মন্তব্য অসৌজন্যমূলক : সিইসি «» ঢাকা উত্তর সিটির উপ-নির্বাচন হতে আইনগত বাধা নেই «» মুসলিম উম্মাহ’র ঐক্যে গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর «» রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালী রাষ্ট্রদূতের বিদায়ী সাক্ষাৎ «» স্বাস্থ্য খাতে দুর্নীতি রোধে শুদ্ধি অভিযান চালানো হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী «» নাইরোবিতে আত্মঘাতি হামলায় নিহত ৬ «» আইসিটি রপ্তানী ৭ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত করতে সরকার কাজ শুরু করেছে : মোস্তাফা জব্বার «» জনগণ টিআইবি’র রূপকথার গল্পের জবাব দেবে : ওবায়দুল কাদের

ভারতে পর্ন নিষিদ্ধের বিপক্ষে মাহিকা

বিনোদন ডেস্ক:-ভারতে পর্ন নিষিদ্ধের সিদ্ধান্তের বিপক্ষে মত দিয়েছেন সে দেশের টিভি অভিনেত্রী ও মডেল মাহিকা শর্মা। মাহিকা মনে করেন, এই সিদ্ধান্ত তাঁর দেশে ধর্ষণ ও যৌন হেনস্তা বাড়াবে। তিনি এ-ও মনে করেন, এ সিদ্ধান্ত প্রত্যন্ত অঞ্চলগুলোতে মেয়েদের অশ্লীল এমএমএস ভিডিও তৈরিতে উৎসাহিত করবে।

‘পর্ন নিষিদ্ধে আমি খুশি নই। এটা কোনো সমাধান নয়। এতে কি ভারতে ধর্ষণ কমবে? আমি মনে করি, এতে আরো এই ধরনের অপরাধ বাড়বে, যেমন ভারতীয় পুরুষরা নিষ্পাপ মেয়েদের এমএমএস ভিডিও তৈরি শুরু করবে আর তা ভাইরাল করবে’, বলেন মাহিকা। মাহিকা আরো বলেন, ‘ভারতের গ্রামগুলোতে ওসব হবে, কারণ ওই মানুষগুলো তাদের রিরংসার সন্তুষ্টি চাইবেই।’

বিতর্কিত এ অভিনেত্রী বলেন, প্রাপ্তবয়স্ক সাইটগুলো নিষিদ্ধের চেয়ে ভারত সরকারের উচিত গণমানুষকে যৌনতাবিষয়ক সচেতনতা নিয়ে আলোচনার পদক্ষেপ নেওয়া। তিনি বলেন, ‘ধর্ষণরোধে যৌনতা বিষয়ে আমাদের আলোচনা করা জরুরি। এ বিষয়টি অন্যান্য বিষয়ের মতোই স্বাভাবিক।’

‘এফআইআর’ ও ‘রামায়ণ’ ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন মাহিকা শর্মা। ব্রিটিশ পর্ন ছবির অভিনেতা ড্যানি ডির সঙ্গে জুটি বেঁধে ‘দ্য মর্ডান কালচার’ ছবি দিয়ে বলিউডে অভিষেক হতে যাচ্ছে মাহিকার। এ ছবির প্রযোজকও ড্যানি ও মাহিকা।

মাহিকা বলেন, ‘আমার বন্ধু ও সহ-অভিনেতা ড্যানি ডি পর্ন ইন্ডাস্ট্রিতে কঠোর পরিশ্রম করছে। সে পরিবার থেকে দূরে এবং বেশিরভাগ সময়ই তার কাজ থাকে। বলিউড বা হলিউডের অভিনেতাদের চাইতেও সে কঠোর পরিশ্রম করে। আমি হতাশ। ভারতীয় ভক্তরা তার সঙ্গে কখনোই যুক্ত হতে পারবে না। সরকারের প্রতি অনুরোধ, ভারতে ফের পর্ন সাইটগুলো চালু করা হোক।’

মাহিকা মনে করেন, চলমান হ্যাশট্যাগ মি টু আন্দোলন ভারতীয় পুরুষের রিরংসার ব্যাপারটি আলোয় এনেছে। পর্ন নিষিদ্ধ হলে তা আরো বাড়বে বলে মত এ অভিনেত্রীর।

‘যৌনতা খারাপ নয়। ভালোবাসা পবিত্র। আক্ষরিক অর্থেই অনুভব করি, আমরা আমাদের স্বাধীনতা হারাচ্ছি। ধর্ষণ বন্ধে সরকারের উচিত বৈধ উপায় বের করা। পর্ন নিষিদ্ধকরণ স্থূল উপায়। হ্যাশট্যাগ মি টু ভারতীয় পুরুষদের রিরংসার গ্রাফ বের করে এনেছে। পর্ন না থাকলে এটা আরো বাড়বে। আমি সুপ্রিম কোর্ট ও সরকারকে সম্মান করি, কিন্তু আমি আমার বন্ধু ড্যানি ডিকে দেখতে ভালোবাসি’, বলেন মাহিকা শর্মা।

এর আগে ‘দ্য মর্ডান কালচার’ সিনেমা সম্পর্কে মাহিকা বলেছিলেন, এ ছবিটি বর্তমান সময়ের মানুষের মনস্তত্ত্বের ওপর তৈরি। বলেন, মানুষ নিজেদের আধুনিক বললেও এখনো অন্যদের পোশাক ও লিঙ্গ দিয়ে বিচার করে।

ড্যানি ডির সঙ্গে বন্ধুত্বের কারণে মাহিকা শর্মা এর আগে সামাজিক মাধ্যমে ভয়াবহ বিদ্রুপের শিকার হয়েছিলেন। শোনা গিয়েছিল, এবার বিগ বসের ১২তম মৌসুমে ড্যানি ডির সঙ্গে মাহিকাকে দেখা যাবে, পরে জানা যায় এটা শুধুই গুজব। সূত্র : ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমস, হিন্দুস্তান টাইমস

Share
সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত : সিএনআই২৪ ডটকম লিমিটেড || Desing & Developed BY Themesbazar.com