,

শিরোনাম :
«» বিশ্বের বহু দেশের চাইতে বাংলাদেশের গণমাধ্যম অনেক বেশি স্বাধীনতা ভোগ করে : তথ্যমন্ত্রী «» সড়ক নির্মাণে গুণগতমান সুরক্ষার ওপর গুরুত্বারোপ সেতুমন্ত্রীর «» আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ডিএমপি’র নিরাপত্তামূলক কর্মসূচি «» বাংলাদেশ ব্যাংকের চুরি হওয়া রিজার্ভের অর্থ উদ্ধার কাজ এখনও চলমান রয়েছে : অর্থমন্ত্রী «» জনগণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অব্যাহত নেতৃত্ব চায় : ড. হাছান মাহমুদ «» বিশ্বকাপের সেঞ্চুরিয়ান «» বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী সংযুক্ত আরব আমিরাতের ২টি প্রধান ব্যবসায়ী গ্রুপ «» ২০৩০ সালের মধ্যে কালাজ্বর রোগীর সংখ্যা শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনা সম্ভব হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী «» স্বচ্ছতার প্রশ্নে আপোস নয় : শিক্ষামন্ত্রী «» আগের মতো এবারও স্থানীয় নির্বাচন প্রতিযোগিতামূলক এবং অংশগ্রহণমূলক হবে : সিইসি

ড. কামালকে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির কাছে ফিরে আসার আহ্বান : নাসিম

নিউজ ডেস্ক:–আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বঙ্গবন্ধুতে বিশ্বাসী এবং মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের মানুষ হিসেবে বিএনপি-জামায়াতের সঙ্গ ছেড়ে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির কাছে ফিরে আসতে ড. কামাল হোসেন, কাদের সিদ্দিকী এবং আ স ম আবদুর রবের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।
আজ শনিবার বিকালে রাজধানীর শাহবাগে সম্মিলিত মুক্তিযোদ্ধা সংসদ আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই আহ্বান জানান। পহেলা ডিসেম্বর মুক্তিযোদ্ধা দিবস হিসাবে ঘোষনার দাবীতে এই সমাবেশের আয়োজন করা হয়।
মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘এখনও সময় আছে ড. কামাল হোসেন, কাদের সিদ্দিকী, রব সাহেবরা জামায়াত-বিএনপির সঙ্গে সম্পর্ক ত্যাগ করে মুক্তিযুদ্ধের শক্তির পক্ষে আসেন।’
তিনি বলেন, ‘কী কারণে আপনারা মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী শক্তির সঙ্গে জোট করেছেন? শুধুমাত্র এমপি হওয়ার জন্য! আপনারা মুক্তিযুদ্ধের কথা বলেন, বঙ্গবন্ধুর কথা বলেন, নিজেরাও মুক্তিযুদ্ধ করেছেন, তাই আপনাদের মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী শক্তির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির কাছে ফিরে আসার আহ্বান জানাবো।’
বিএনপিকে জামায়াতের সঙ্গ ছাড়ার আহ্বান জানিয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘এখনও সময় আছে জামায়াতকে ছেড়ে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে আসেন। না হলে এমন সময় আসবে মানুষের সামনে দাঁড়াতে পারবেন না।’
সম্মিলিত মুক্তিযোদ্ধা সংসদের আহবায়ক শাজাহান খানের সভাপতিত্বে সমাবেশে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, সাম্যবাধী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়–য়া প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
১ ডিসেম্বর মুক্তিযোদ্ধা দিবস হিসাবে পালনের দাবি জানিয়ে নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেন, ভবিষ্যৎ প্রজন্ম যেন আমাদের স্মরণ করতে পারে, বাংলাদেশে অনেক দিবস পালন করা হয়। এ জন্য ১ ডিসেম্বর মুক্তিযোদ্ধা দিবস পালনের জন্য আমরা বারবার বলে আসছি।

Share
সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত : সিএনআই২৪ ডটকম লিমিটেড || Desing & Developed BY Themesbazar.com