Logo
×
ব্রেকিং নিউজ :
শহীদ শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন আজ প্রবাসী কর্মীদের জন্য সাপোর্ট সেন্টার স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে : প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী স্কটল্যান্ডের কাছে লজ্জার হার বাংলাদেশের ইতালি ও রাশিয়া সফর শেষে দেশে ফিরলেন স্পিকার ১৬তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার চূড়ান্ত ফল প্রকাশ পর্দা উঠল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সপ্তম আসরের জার্মানি জলবায়ু ও জ্বালানি ইস্যুতে বাংলাদেশকে সাহায্য করতে আগ্রহী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সশরীরে পাঠদান ও পরীক্ষা কার্যক্রম শুরু রোহিঙ্গা ও আটকে পড়া পাকিস্তানিরা বাংলাদেশের অর্থনীতিতে চাপ সৃষ্টি করছে : প্রধানমন্ত্রী দেশে ২০৩০ সালের মধ্যে দেশে ১৪০ মিলিয়ন কেজি চা উৎপাদনের পরিকল্পনা
  • আপডেট টাইম : 11/10/2021 06:16 PM
  • 37 বার পঠিত
ফাইল ছবি

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপিতে এখন বিচ্ছেদের সানাই বাজছে। 
তিনি বলেন, ‘বিএনপির নিজের ঘরে এখন বিচ্ছেদের সানাই বাজে। একে একে নেতারা ঘর ছেড়ে চলে যাচ্ছেন। ২০ দলীয় জোটেও দেখা দিয়েছে ভাঙনের বিষাদ সুর।’ 
ওবায়দুল কাদের আজ সোমবার রাজধানীর সূচনা কমিউনিটি সেন্টারে মোহাম্মদপুর থানার ১৯ নং ওয়ার্ডের পাঁচটি ইউনিটের সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ মন্তব্য করেন।
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, একে একে নেতারা দল ছেড়ে যাচ্ছে। তাদের ২০ দলীয় জোটেও দেখা দিয়েছে ভাঙনের বিষাদ সুর। কাজেই বিএনপি নিজেরাই বিভক্ত হয়ে যাচ্ছে। এখন শুনছি কেন্দ্রীয় সম্মেলন না করে ঘরে বসেই কমিটি করবে। সম্মেলন নেই দলটির। নিজেদের ঘরেই গণতন্ত্র নেই। তারা দেশে গণতন্ত্র কী করে করবে?
‘নির্বাচন এখন কতিপয় জটিল অসুখে আক্রান্ত, তাকে বাঁচাতে মেডিকেল বোর্ড গঠন করতে হবে’ নির্বাচন কমিশনার (ইসি) মাহবুব তালুকদারের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, অবাক লাগে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান নির্বাচন কমিশনের কমিশনার মাহবুব তালুকদার একটি দলের হয়ে যেভাবে রাজনৈতিক বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছেন। তাতে মনে হয় ইসি নয়, তিনি নিজেই জটিল ও কঠিন মানসিক রোগে আক্রান্ত। বর্তমান ইসির মূল সমস্যা হচ্ছেন তিনি নিজেই।
ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী বছর মেট্রোরেল, পদ্মা সেতু, বাস ট্রাফিক ট্রানজিট, গাজীপুর টঙ্গী চার লেন সড়ক ও বঙ্গবন্ধু কর্ণফুলী টানেল উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। শেখ হাসিনা উন্নয়নের নতুন ধারা দেশে নিয়ে এসেছেন। ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন। বাংলাদেশে দশটি ফ্লাইওভার তৈরি হবে। আগামী বছর চারটি মেগা প্রজেক্ট উদ্বোধন হবে, তখন বিএনপির সমালোচনার মুখ জনগণ বন্ধ করে দেবেন। তাদের সমালোচনা করার আর জায়গা থাকবে না।  
আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, কতগুলো অভিযোগ আসে। সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, ভূমিদস্যু, চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী এ ধরনের বিতর্কিত, অপকর্মকারীদেরকে আপনারা দলে ঠাঁই দেবেন না। নিজের লোক বাড়ানোর জন্য খারাপ লোকদের টেনে আনবেন না। খারাপ লোকেরা বসন্তের কোকিল। ভালো মানুষ যত আওয়ামী লীগে আসবে আমরা তত শক্তিশালী হব।
ওবায়দুল কাদের বলেন, দলে যদি কিছু খারাপ লোক থাকে, এগুলোকে বাদ দিয়ে দেন। এখানে ত্যাগী কর্মীর অভাব নেই। দরকার নেই খারাপ লোকের। খারাপ লোকদের বাদ দিয়ে, ভালো মানুষদের নিয়ে আমরা দল করব। সেই আওয়ামী লীগ আগামী নির্বাচনে অংশ নেবে।
১৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি সলিম উল্লাহ সলুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি, সহ-সভাপতি সাদেক খান, সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক রানা প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...