Logo
×
ব্রেকিং নিউজ :
রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘ বাংলাদেশকে অব্যাহত সমর্থন দিবে সব মানুষের ডিজিটাল নিরাপত্তার জন্যই আইন : তথ্যমন্ত্রী ও সম্প্রচার একশ’ বছরের পথ পরিক্রমায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় জাতিকে যা দিয়েছে তা নিঃসন্দেহে গর্ব ও গৌরবের : রাষ্ট্রপতি করযোগ্য ব্যক্তিদের কর দিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়াতে বললেন আইনমন্ত্রী আখাউড়া-আগরতলা রেল রুট পুনরায় চালুর ওপর গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর ষাটোর্ধদের বুস্টার ডোজ দেয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢাবি’র শতবর্ষপূর্তি ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উৎসবের উদ্বোধন আগামীকাল ১৬ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচন সরকার শিক্ষার সমান সুযোগ নিশ্চিত করতে কাজ করে যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এক জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৭৩ জন
  • আপডেট টাইম : 17/11/2021 07:11 PM
  • 1592 বার পঠিত

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার কয়ড়া ইউনিয়নে আসন্ন নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা খোরশেদ আলম ও তার কর্মীদের উপরে বুধবার হামলার অভিযোগ আনা হয়েছে। এই ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী হেলাল উদ্দিন ও তার কর্মীরা এই হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা খোরশেদ আলম। ওই হামলায় খোরশেদ আলমসহ তার ৬ জন কর্মী আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ভদ্রকোল গ্রামের রকিব হাসানকে (৪৫) গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থায় অবনতি দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। বীর মুক্তিযোদ্ধা খোরশেদ আলমও সিরাজগঞ্জ ফজিলাতুন্নেছা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। এই ঘটনায় এলাকায় এখন চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রেখেছে।

বীর মুক্তিযোদ্ধা খোরশেদ আলম গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে অভিযোগ করে বলেন, তিনি তার কর্মীদের নিয়ে বেলা সাড়ে ৯টার দিকে কয়ড়া এলাকায় নিবার্চনী প্রচার প্রচারনায় গেলে মানিকদহ গ্রামের সড়ক সেতুর কাছে পৌঁছিলে কয়ড়া ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দীন তার কর্মীদের নিয়ে তাদের উপরে হামলা চালায়। এসময় বীর মুক্তিযোদ্ধা খোরশেদ আলমসহ তার ৬জন কর্মী আহত হন। মুক্তিযোদ্ধা খোরশেদ আলম তাৎক্ষণিক বিষয়টি উল্লাপাড়া মডেল থানা পুলিশকে অবহিত করেছেন। হামলাকারীদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত চেয়ারম্যান নৌকার প্রার্থী হেলাল উদ্দীনের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি খোরশেদ আলমের উপরে হামলার বিষয়টি অস্বীকার করেন। হেলাল উদ্দীন জানান, খোরশেদ আলম নিবার্চনে তার (খোরশেদ) প্রতি জনগনের সহানুভুতি আদায় এবং হেলাল উদ্দীনের প্রচারনাকে বাধাগ্রস্থ করতে সাংবাদিকদেরকে মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছেন।

এ বিষয়ে উল্লাপাড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) হুমায়ুন কবিরের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, হামলার খবর পেয়ে তিনি পুলিশ বাহিনী নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে যান এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। ওসি আরো জানান, মুক্তিযোদ্ধা খোরশেদ আলম থানায় মামলা দিলে তিনি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...