×
ব্রেকিং নিউজ :
নিউইয়র্কে বাংলাদেশ বিষয়ক জাতিসংঘ সাইডলাইন কনফারেন্স অনুষ্ঠিত মান্দায় বিদ্যুৎ লাইনের গাছপালা সাফ করতে গিয়ে মারধরের শিকার শ্রমিক আফিফের হাফ-সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ১৫৮ রান চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা ও ব্যবসা-বাণিজ্য সহজ করতে সরকারের কমিটি গঠন জীবনমান উন্নয়নে চা শ্রমিক পরিবারকে ঘর নির্মাণ করে দিচ্ছে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় নির্বাচন ছাড়া সরকার পরিবর্তনের কোন সুযোগ নেই : ওবায়দুল কাদের পর্যটন এলাকায় অবকাঠামোসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধার বৃদ্ধিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার সুপারিশ পঞ্চগড়ে নৌকাডুবির ঘটনায় প্রাণহানিতে প্রধানমন্ত্রীর শোক চীন ও বাংলাদেশ অপরিহার্য কৌশলগত অংশীদার : রাষ্ট্রদূত পঞ্চগড়ের করোতোয়ায় নৌকাডুবিতে হতাহতের ঘটনায় রাষ্ট্রপতির শোক
  • আপডেট টাইম : 21/09/2022 08:34 PM
  • 30 বার পঠিত

এশিয়া উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)’র কান্ট্রি ডিরেক্টর এডিমন গিন্টিং আজ বলেছেন, দেশের সার্বিক অর্থনৈতিক প্রবণতা ইতিবাচক রয়েছে।
রাজধানীতে এডিবি’র বাংলাদেশ রেসিডেন্ট মিশনে প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।
তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের সার্বিক অর্থনৈতিক প্রবণতা এখনো ইতিবাচক আছে। কিন্তু, যদি আপনারা সঠিক নীতি গ্রহণ করতে পারেন, তবে আপনারা এই অর্থনীতিকে আরো জোরালোভাবে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবেন।’
বাংলাদেশের অর্থনীতির হালনাগাদ তথ্য-উপাত্ত নিয়ে এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট আউটলুক, ২০২২  ‘সফটেনিং গ্রোথ অ্রান্ড এ ডার্কেন্ড গ্লোবাল আউটলুক, রিজিওনাল’ শিরোনামে প্রতিবেদনের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। 
 অনুষ্ঠানে এডিবি’র সিনিয়র কান্ট্রি স্পেশালিস্ট সুন চ্যান হং একটি পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপনা করেন। এ সময় এডিবি’র ডেপুটি কান্ট্রি ডিরেক্টর জিয়াংবো নিং ও এক্সটার্নাল এফেয়ার্সের টিম লিডার গোবিন্দ বার উপস্থিত ছিলেন।
এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট আউটলুক (এডিও) ২০২২ হালনাগাদ অনুযায়ী, ২০২৩ অর্থবছরে বাংলাদেশের মোট দেশজ উৎপাদন বা জিডিপি ৬.৬ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করা হচ্ছে।    
এই মাঝারি নি¤œ প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস অভ্যন্তরীণ ধীর চাহিদা ও দুর্বল রপ্তানীর প্রতিফলন। অর্থনীতিতে দুর্বল প্রবৃদ্ধির কারণেই এমনটা সম্ভাবনার সৃষ্টি হয়েছে।
মূল্যস্ফিতী ২০২২ অর্থবছরের ৬.২ শতাংশ থেকে বেড়ে ২০২৩ অর্থবছরে ৬.৭ হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
দীর্ঘায়িত ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে বৈশ্বিক অনিশ্চয়তায় রপ্তানিতে মন্থরগতি এই প্রবৃদ্ধি প্রক্ষেপণের প্রধান ঝুঁকি।
গিনটিং বলেন, ‘অভ্যন্তরীণ ও বৈশ্বিক চাহিদা দ্রুত বৃদ্ধির ফলে গত বছর বাংলাদেশের জন্য একটি চমৎকার বছর ছিল। দেশের জিডিপি ২০২১ অর্থবছরের ৬.৯ শতাংশ থেকে সামান্য বেড়ে গত বছর ৭.২ শতাংশে দাঁড়িয়েছিল। 
এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এই কঠিন সময়ে ৬.৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করা এই মুহূর্তে ভাল। সরকার এই অনুমান অতিক্রম করতে পারলে ঋণদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো সন্তুষ্ট হবে।  
সরকারের আর্থিক সম্প্রসারণ নীতি গ্রহণ করা উচিৎ কিনা এমন এক প্রশ্নের জবাবে এডিবি কান্ট্রি ডিরেক্টর বলেন, কোভিড-১৯ মহামারীকালে রাজস্ব ও সম্প্রসারণ নীতিকে সহায়তার ওপর আলোকপাত করা হয়েছিল।  
কিন্তু, বাংলাদেশের অর্থনীতির চলমান সমস্যা হচ্ছে- বহিঃস্থ ভারসাম্যহীনতা বৃদ্ধি, আর এজন্য এই মুহূর্তে সম্প্রসারণ নীতির খুব একটা প্রয়োজন নেই।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...