×
ব্রেকিং নিউজ :
দুর্যোগ মোকাবিলায় টেলিযোগাযোগ সেবা খুবই গুরুত্বপূর্ণ : ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে গাজীপুরের সংসদ সদস্য শামসুন্নাহারের শ্রদ্ধা বগুড়ায় বিএডিসি’র উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ গলফ টুর্ণামেন্টে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে কোনো বাধা নেই: আইনমন্ত্রী আলজেরিয়ায় অনুষ্ঠিত পিইউআইসি’র সভায় বাংলাদেশ সংসদীয় প্রতিনিধিদলের অংশগ্রহণ প্রধানমন্ত্রী রোববার রাজশাহীতে ১,৩১৬.৯৭ কোটি টাকার বিভিন্ন প্রকল্প উদ্বোধন করবেন বিএনপির আন্দোলন চলে রিমোট কন্ট্রোলে অদৃশ্য নির্দেশে : ওবায়দুল কাদের দম ফুরিয়ে এখন হাঁটার পথ ধরেছে বিএনপি : তথ্যমন্ত্রী ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ২ হাসপাতালে ভর্তি
  • আপডেট টাইম : 04/12/2022 07:48 PM
  • 52 বার পঠিত

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে যারা হত্যা করেছে তারা আস্তে আস্তে নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে। 
আজ রোববার বিকেলে দক্ষিণ সিটির প্রধান কার্যালয় নগর ভবন প্রাঙ্গনে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, শেখ ফজলুল হক মনি'র ৮৪তম জন্মদিবসের স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। 
শেখ সেলিম বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তাঁর পরিবারের সদস্যদের হত্যা করার মতো গর্হিত অপরাধ আল্লাহ সইবে না। যারা করেছে, তারা নিশ্চয়ই নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে।
যারা ষড়যন্ত্র করেছিল তারাই একে একে নিঃশেষ হয়ে গেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, শেখ পরিবার বাংলাদেশে যেন আর কোনদিন এ দেশের কথা বলতে না পারে, সেজন্য শেখ মুজিবকে সপরিবারে নিশ্চিহ্ন করে দিতে চেয়েছিল। কিন্তু শেখ হাসিনা, শেখ রেহানা বাইরে ছিল। শেখ হাসিনা আজকে বাংলাদেশের রাজনীতিতে এক নম্বর ব্যক্তি। তিনি আজ এ দেশের প্রধানমন্ত্রী। তাপস আজ সিটি করপোরেশনের মেয়র। পরশ ইংরেজিতে মাস্টার্স করেছে। সে এখন যুবলীগের চেয়ারম্যান। আল্লাহ যদি চায় কেউ কিছু করতে পারে না। 
অনুষ্ঠানে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ঢাদসিক) মেয়র ও শেখ ফজলুল হক মণি'র ছোট ছেলে ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নুর তাপস সভাপতিত্ব করেন। 
তিনি বলেন, ‘চে গুয়েভারাকে যেমনি বিপ্লবের, কমিউনিস্ট সংগ্রামের অন্যতম নেতা বলা হয়, তেমনি শেখ ফজলুল হক মণি বাংলাদেশের বিপ্লবের, সংগ্রামের অবিসংবাদিত নেতা ছিলেন। বাংলাদেশের চে গুয়েভারা ছিলেন শেখ ফজলুল হক মণি। শেখ মণি শুধু সংগ্রামই করেননি, নেতৃত্বই দেননি -- তিনি একজন থিংক ট্যাংকও ছিলেন। তিনি অত্যন্ত মেধাবী একজন রাজনীতিবিদ ছিলেন।’
অনুষ্ঠানে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু আহমেদ মন্নাফি, সাধারণ সম্পাদক মো. হুমায়ুন কবির, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য জিন্নাতুল বাকিয়া প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও সচিব আকরামুজ্জামান স্বাগত বক্তব্য রাখেন। 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...