×
ব্রেকিং নিউজ :
বাঙালি জাতিরাষ্ট্র প্রতিষ্ঠাতা বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্বনেতা : তথ্যমন্ত্রী বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী কল্যাণ ট্রাস্ট আইনের খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন সরকার প্রশাসনকে মুখোশ পরিধানের ব্যাপারে আইন প্রয়োগ ও সচেতনতা সৃষ্টির নির্দেশ দিয়েছে : মন্ত্রিপরিষদ সচিব বঙ্গবন্ধুই সাংবাদিকদের জন্য প্রেস ইনষ্টিটিউট গঠন করেছিলেন: হানিফ করোনা ভ্যাকসিন আগে পাওয়াই এখন সরকারের মূল লক্ষ্য : স্বাস্থ্যমন্ত্রী পানামায় আকস্মিক বন্যায় একই পরিবারের ১১ জনের প্রাণহানি আফগানিস্তানে বোমা হামলায় ৮ বেসামরিক নাগরিক নিহত বুধবার থেকে শারিরীক উপস্থিতি এবং ভার্চুয়ালি বিচারকার্য পরিচালনায় হাইকোর্ট বেঞ্চ গঠন ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির কোভিড-১৯ পজেটিভ ডিসেম্বরের মধ্যে দক্ষিণ সিটিকে জঞ্জালমুক্ত করা হবে : মেয়র তাপস
  • আপডেট টাইম : 19/07/2020 09:34 PM
  • 75 বার পঠিত

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান বলেছেন, বিসিএসআইআরে বিশ্ব মানের জিনোম ল্যাবরেটরি স্থাপন করা হয়েছে।পৃথিবীতে হাতে গোনা কয়েকটি এ ধরনের ল্যাব রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা গবেষণার ফলাফল বিশ্ব সভায় পৌঁছে দিচ্ছি। আমাদের সবার মিলিত শক্তি বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।
ইয়াফেস ওসমান বলেন, আমাদের জিনোম সিকোয়েন্সিং’র ফলাফলের উপর নির্ভর করে ভ্যাক্সিন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ইউনিভার্সেল একটি ভ্যাক্সিন উৎপাদনে সক্ষম হবে। ঔষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান আমাদের দেশের করোনা ভাইরাসের মিউটিশনকে বিবেচনায় নিয়ে সঠিক ও কার্যকর ঔষুধ উৎপাদন করবে।
আজ বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদ (বিসিএসআইআর)’র ডিআরআইসিএম অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত নভেল করোনা ভাইরাস (কোভিট-১৯) জিনোম সিকোয়েন্সিং বিষয়ক প্রেস ব্রিফিং-এ মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, আমরা দেশের বিভিন্ন স্থান হতে ৩শ’টি নমুনা সংগ্রহ করে এ গবেষণাগারে সিকোয়েন্সিং করার টার্গেট নিয়েছিলাম। প্রায় ২শ’টি নমুনার সিকোয়েন্সিং করা হয়েছে। ইতোমধ্যে ১৭৩ টির ফলাফল গ্লোবাল ইনিশিয়েটিভ অন শেয়ারিং অল ইনফ্লয়েঞ্জা ডাটা (জিআইএসএআইডি) এ ফল প্রকাশ করেছে। আমরা পরবর্তীতে আরও বেশি নমুনা নিয়ে কাজ করব এবং করোনা ভাইরাসসহ এ ভাইরাসের সাথে সংযুক্ত অন্যান্য ভাইরাসের বিষয়ে গবেষণা করব।
জিনোম ল্যাবের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. সেলিম খান বলেন, আমাদের গবেষণার সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত ছিল অস্ট্রেলিয়া এবং লন্ডনের বিখ্যাত দু’টি গবেষণাগার। আমাদের সহকর্মীরাই এই ল্যাবে কাজ করছে।
তিনি আরও বলেন, বিসিএসআইআর’র বিজ্ঞানীদের গবেষণায় দেখা গেছে বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস ইতোমধ্যে তার জিনোমিক লেভেলে ৫৯০টি ও প্রোটিন লেভেলে ২৭৩ টিরও অধিক পরিবর্তন ঘটিয়েছে। এগুলোর মধ্যে ৯৫ শতাংশ ক্ষেত্রে ‘ডি৬১৪জি’ করোনা ভাইরাস স্টেইনটি সিকোয়েন্সিং-এ সনাক্ত হয়েছে, যা বাংলাদেশের সংক্রমণের প্রধান কারণ। এ বিষয়ে গবেষণালব্দ ফলাফল শীঘ্রই স্বীকৃত পিয়ার রিভিউড জার্নালে প্রকাশিত হওয়ার পথে প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।
তিনি বলেন, প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে বিশ্বব্যাপী বিপর্যয়ে আমাদের ক্ষুদ্র অবদানকে সম্পৃক্ত করতে পারায় আমরা খুবই আনন্দিত। ভবিষ্যতে আমাদের অবদানকে আরও বেশি সম্প্রসারিত করব।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিসিএসআইআর’র চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) মুহাম্মদ শওকত আলী। এসময় সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞানী ও কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...