×
ব্রেকিং নিউজ :
দুই-একটা ট্রেন বাদে আজ ৩০টা ট্রেন সময়মতো ছেড়ে গেছে : রেলপথ মন্ত্রী অবসরে গেলেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি আবু আহমেদ জমাদার রাঙ্গামাটিতে শিশু হত্যার দায়ে একজনের মৃত্যুদন্ড জমে উঠেছে খাগড়াছড়ির কোরবানীর হাট: প্রাকৃতিকভাবে পালন করা গরুর চাহিদা সমতলেও নেদারল্যান্ডসকে হারিয়ে সুপার এইটের পথে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা কাদের, উপনেতা আনিসুল ও রওশনকে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ শুভেচ্ছা বায়ুদূষণ রোধে আইনের যথাযথ ব্যবহার ও বাস্তবায়ন জরুরি : স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ঈদে ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তায় ৮টি পয়েন্টে নিয়ন্ত্রণ কক্ষ কাজ করছে স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে দেশে ফিরেছেন ওবায়দুল কাদের সরকার হয়রানি বিহীন ভূমিসেবা নিশ্চিত করেছে : ভূমিমন্ত্রী
  • প্রকাশিত : ২০২৩-০৫-২৫
  • ৩৪২৫৩৯ বার পঠিত
  • নিজস্ব প্রতিবেদক
সদ্যসমাপ্ত ১৮তম এশিয়া মিডিয়া সামিটের ঘোষণাপত্র ‘বালি সমঝোতা স্মারকে’ বাংলাদেশের তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ উত্থাপিত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দায়িত্বশীলতা বৃদ্ধির প্রস্তাব শীর্ষ গুরুত্ব পেয়েছে।
ইন্দোনেশিয়ার বালিতে ২৩-২৫ মে এশিয়া-প্যাসিফিক ইনস্টিটিউট ফর ব্রডকাস্টিং ডেভালপমেন্ট (এআইবিডি) আয়োজিত এ সম্মেলনে এশীয় প্রশান্তমহাসাগরীয় ৪০টি দেশ ও অঞ্চলগুলোর পাঁচ শতাধিক প্রতিনিধি যোগ দেন। 
এআইবিডি’র সদস্য দেশগুলোর নেতৃবৃন্দ বুধবার সন্ধ্যায় স্বাক্ষরিত ‘বালি সমঝোতা স্মারকে’ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভুল, বিভ্রান্তিকর এবং অসত্য তথ্যের কারণে সৃষ্ট চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় নানা উদ্যোগ ও প্রচেষ্টা নেওয়ার প্রতিশ্রুতি ঘোষণা করেন। 
এ সম্মেলনের উদ্বোধনী পর্বে মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিস্ফোরণ আমাদের জীবনকে অনেক পরিবর্তন করেছে। এই পরিবর্তন এসেছে সমাজে, বিশ্বে, প্রতিটি মানুষের জীবনে। বাংলাদেশও এর ব্যতিক্রম নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘গত দেড় দশকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমাদের দেশে গণমাধ্যমের ব্যাপক বিকাশ ঘটেছে। পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের প্রসার জনজীবনে অনেক পরিবর্তন এনেছে।’ 
তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘স্বাধীন, স্বচ্ছ এবং দায়িত্বশীল গণমাধ্যম যেমন গণতন্ত্রের বিকাশ ও অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য সহায়ক, তেমনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও তথ্যের যথার্থতা এবং সততার মূল্যবোধকে সমুন্নত রাখা একান্ত প্রয়োজন। এই মাধ্যমে ভুল বা অসত্য তথ্য মুহূর্তের মধ্যে ছড়িয়ে ব্যক্তি এবং জনজীবনকে বিপর্যস্ত করতে পারে, দেশে দেশে এর বহু উদাহরণ রয়েছে।’ 
‘এই বিপর্যয় রোধ করতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারিদের সচেতন থাকতে হবে এবং ভুল তথ্যের জন্য সেই মাধ্যমের মালিক ও অংশীজনদের দায়িত্বশীলতাও নিশ্চিত করতে হবে’ বলেন তিনি। 
তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদের প্রস্তাবনা প্রতিধ্বনিত হয়েছে সম্মেলনের ঘোষণাপত্রে। তথ্যের যথার্থতা, স্বচ্ছতা এবং সততার মূল্যবোধকে সমুন্নত রাখতে সোশ্যাল মিডিয়ার দায়িত্বশীল ব্যবহারে নাগরিকদের উদ্বুদ্ধ করার কথা রয়েছে ‘বালি সমঝোতা স্মারকে’। একই সাথে ভুল, বিভ্রান্তিকর এবং অসত্য তথ্যের প্রচার রোধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর মালিক এবং অংশীজনদের জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার উদ্যোগ নেওয়ার বিষয়েও এআইবিডি সদস্যদের ঐক্যমতের কথা স্মারকে বর্ণিত হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...
#
ক্যালেন্ডার...

Sun
Mon
Tue
Wed
Thu
Fri
Sat