×
ব্রেকিং নিউজ :
শেখ হাসিনা রাজনীতির জাদুকর : ওবায়দুল কাদের আওয়ামী লীগ বাজেটের ৮৭ শতাংশের বেশি বাস্তবায়ন করলেও বিএনপি করেছে মাত্র ৭০ শতাংশ এপিএ বাস্তবায়নে প্রথম হয়েছে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী ধীরে নামছে বন্যার পানি, বাড়ি ফেরার অপেক্ষায় সাড়ে ৩৩ হাজার মানুষ রাঙ্গামাটিতে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন নড়াইলে আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন সাহসিকতার সঙ্গে চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে উন্নত পুলিশী সেবা দিন : শেখ হাসিনা জনগণের আস্থা অর্জন ও ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় দলকে সুসংগঠিত করতে নেতাকর্মীদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান সেনা প্রধানকে জেনারেল র‌্যাংক ব্যাজ পরানো হয়েছে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নবনিযুক্ত সেনাবাহিনী প্রধানের সৌজন্য সাক্ষাৎ
  • প্রকাশিত : ২০২৪-০৬-১০
  • ৪৩৫৪৯৪ বার পঠিত
  • নিজস্ব প্রতিবেদক
দিনাজপুর জেলার গৌড়-এ-শহীদ ঈদগাহ মাঠ পবিত্র ঈদ-উল-আযহার নামাজ আদায়ের লক্ষ্যে প্রস্তুতি কাজের তদারকি ও মাঠ পরিদর্শন করেন জেলা প্রশাসক শাকিল আহমেদ।
আজ সোমবার বিকেল সাড়ে ৩টায় গৌড়-এ-শহীদ ঈদগাহ ময়দান পবিত্র ঈদুল আজহার নামাজের জন্য প্রস্তুতি কাজ পরিদর্শন করেন জেলা প্রশাসক।পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আগামী ১৭ জুন এশিয়ার অন্যতম বৃহত্তর ঈদগাহ ময়দান, গোড়-এ-শহীদ ঈদগাহ মাঠে প্রতিবারের মতো এবারও দেশের সর্ববৃহৎ ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। মুসল্লিদের নামাজ আদায়ের সু-ব্যবস্থার জন্য মাঠের প্রস্তুতি কাজ গত কয়েকদিন থেকে শুরু করা হয়েছে। বৃষ্টি হলে যাতে মাঠে পানি জমে না থাকে সেজন্য পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এখন মাঠের শুধু টুকিটাকি কাজ চলছে।
সমগ্র মাঠে রোলার দিয়ে রোলিংয়ের কাজ করা হচ্ছে। জেলা প্রশাসন ও দিনাজপুর পৌরসভা যৌথভাবে এই মাঠের প্রস্তুতির কাজ করছেন। সম্মুখে বর্ষা মৌসুম বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এরমধ্যেও আল্লাহর রহমতে সুষ্ঠুভাবে যাতে নামাজ আদায় হয়, সেই লক্ষ্যেই সবধরনের প্রস্তুতি সম্পূর্ণ করা হয়েছে।
তিনি বলেন, জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবাল রহিম এমপি সার্বক্ষণিক ঢাকা থেকে জেলা প্রশাসন ও পৌরসভার মেয়রের সঙ্গে ঈদগাহ মাঠ প্রস্তুতির বিষয় যোগাযোগ করছেন। তিনি ঈদগাহ মাঠের প্রস্তুতির বিষয় সবধরনের দিকনির্দেশনা দিচ্ছেন। তার পরামর্শে ঈদগাহ মাঠের কাজ চলছে।
তিনি বলেন, ঈদগাহ মাঠে আগত মুসল্লিদের অযু ও প্রয়োজনে বাথরুমের ব্যবস্থা করা হয়েছে। অস্থায়ীভাবে প্রায় ৫০টি  অস্থায়ী বাথরুম নির্মাণ করা হয়েছে। ইলেকট্রিক ব্যবস্থা ও ঈদগাহ মাঠের নান্দনিক মিনারসহ স্থাপনা ধোয়া-মোচা ও রঙ করা হয়েছে। আগত মুসল্লিদের মোটরসাইকেল অন্যান্য যানবাহন নিরাপদে রাখার জন্য ঈদগাহ মাঠের বাহিরে একাধিক ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।
তিনি বলেন, নিরাপত্তা ব্যবস্থায় ঈদগাহ মাঠের মধ্যে চারটি নিরাপত্তা চৌকি ও পর্যবেক্ষণ টাওয়ার স্থাপন করা হচ্ছে। নিরাপত্তার দায়িত্বে পুলিশের পাশাপাশি র্যাইব সদস্যরা নিয়োজিত থাকবেন। র্যা ব ঈদের জামাত চলাকালীন সময়ে ড্রোন চালিয়ে নিরাপত্তা ব্যবস্থা তদারকি করবেন।
আগত মুসলিমদের ঈদগাহ মাঠে প্রবেশের জন্য পূর্বের মতো একাধিক গেইট থাকবে। ওই গেইট দিয়ে মুসল্লীরা নিরাপত্তার মধ্যে মাঠে সহজে প্রবেশ করে নামাজ আদায়ের অংশগ্রহণ করবেন।
ঈদগাহ মাঠ পরিদর্শনকালে জেলা প্রশাসনের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন- পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র আবু তৈয়ব আলী দুলাল, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফয়সাল রায়হান, পৌর যুবলীগের সভাপতি আশরাফুল আলম রমজান, কাউন্সিলর সানোয়ার হোসেন সরকার ও প্রকৌশলী মতিউর রহমান মতি প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...
#
ক্যালেন্ডার...

Sun
Mon
Tue
Wed
Thu
Fri
Sat