×
ব্রেকিং নিউজ :
গোপালগঞ্জে হত্যা মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন বগুড়ায় সমাজকর্ম দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনাসভা প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টের সভা অনুষ্ঠিত শিগগির বিদ্যুৎ সমস্যার সমাধান হবে : পরিকল্পনামন্ত্রী বাঙ্গালির স্বাধীকার আন্দোলনে বঙ্গমাতার অবদান পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভূক্ত করার প্রস্তাব রাজনীতি থেকে বিএনপি’র বিদায় নেওয়ার সময় এসেছে : ওবায়দুল কাদের জিম্বাবুয়েকে ১০৫ রানে হারিয়ে হোয়াইটওয়াশ এড়ালো বাংলাদেশ দেশের সমুদ্র বন্দরসমূহে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ব্যবস্থাকে টিকিয়ে রাখা সকল রাজনৈতিক দলের সম্মিলিত দায়িত্ব : তথ্যমন্ত্রী পূজামন্ডপে হামলা ভাংচুরের বিচার দাবি জন্মাষ্টামী উদযাপন পরিষদের
  • আপডেট টাইম : 01/01/1970 08:00 PM
  • 758 বার পঠিত

আনারস খেতে অনেকেই পছন্দ করে। গ্রীষ্মকালীন এ ফলটির মধ্যে রয়েছে অনেক পুষ্টিগুণ। আনারস অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের ভালো উৎস। এটি প্রদাহ কমাতে ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে কাজ করে।

আনারসের মধ্যে থাকা ব্রোমেলেইন এনজাইমের কারণে এটি হজম ভালো করে। এ ফলটি ক্যানসার প্রতিরোধেও উপকারী। আনারসে রয়েছে প্রদাহরোধী উপাদান। এটি আর্থ্রাইটিস প্রতিরোধে কার্যকর।

তবে এত পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ এ ফলটি কি গর্ভাবস্থায় খাওয়া উপকারী?  ভারতীয় ওয়েবসাইট টাইমস অব ইন্ডিয়া ও স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট হেলথলাইন জানিয়েছে এর উত্তর।

আনারস বেশ পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ ফল। তবে এ ফলটি থেকে গর্ভবতী নারীকে একটু দূরেই থাকতে বলা হয়। কারণ, আনারসের মধ্যে রয়েছে উচ্চ মাত্রায় ব্রোমেলেইন। এ এনজাইমটি সারভিক্সকে নরম করে দেয় এবং জরায়ুর সংকোচনকে উদ্দীপ্ত করে। এ কারণে আগেভাগে সন্তান জন্ম হতে পারে, যেটি মা ও শিশু উভয়ের জন্যই ক্ষতিকর।

এ ছাড়া ব্রোমেলেইন গর্ভপাতও ঘটিয়ে দিতে পারে। তাই গর্ভাবস্থায় আনারস খাওয়া এড়িয়ে যাওয়ার পরামর্শই দেন বিশেষজ্ঞরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...