×
ব্রেকিং নিউজ :
বাংলাদেশকে বহির্বিশ্বে তুলে ধরতে কমন ব্র্যান্ডিং প্ল্যাটফর্ম গঠনের সিদ্ধান্ত ওমিক্রন কোভিড-১৯ এর ডেল্টা ভেরিয়েন্টের জায়গা নিচ্ছে : স্বাস্থ্য অধিদপ্তর দেশ ও জনগণের কল্যাণে আরও নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে কাজ করার আহ্বান আইজিপির নানামুখি ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করেছি : ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে স্ক্যানো ইউনিট চালু বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি অব্যাহত রাখতে পাশে থাকবে কমনওয়েলথ দেশে ২৪ ঘন্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত ২ জন নতুন রোগী ভর্তি পোশাক শিল্পের নিরাপত্তায় আইএলও ও বিজিএমইএ একসাথে কাজ করবে ঢাবি থেকে ১৩ জন পি এইচ ডি এবং ১৮ জনের এম ফিল ডিগ্রি অর্জন স্বাধীনতা রক্ষা ও গণতন্ত্র সমুন্নত রাখতে কাজ করার জন্য পুলিশ সদস্যদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান
  • আপডেট টাইম : 01/01/1970 08:05 PM
  • 575 বার পঠিত

বড়দের মতো শিশুদেরও পিঠে ব্যথা হয়। সাধারণত মাংসপেশির টান, ভারসাম্যহীনতা, পিঠ বেঁকে যাওয়া, মেরুদণ্ডের হাড় ভেঙে যাওয়া, কশেরুকা সরে যাওয়া, সংক্রমণ ইত্যাদি কারণে পিঠে ব্যথা হয়।

জ্বর হওয়া কিংবা ওজন কমে যাওয়া, দুর্বলতা কিংবা অসাড় অনুভূতি, হাঁটতে সমস্যা, ব্যথা একপর্যায়ে বা দুপায়ে ছড়িয়ে পড়া, পায়খানা বা প্রস্রাব করতে সমস্যা হওয়া ইত্যাদি শিশুদের পিঠে ব্যথার কিছু উপসর্গ।

শিশুদের পিঠে ব্যথার কারণ নির্ণয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও চিকিৎসা কী? 

পরীক্ষা-নিরীক্ষা

শিশুর পিঠব্যথার কারণ খুঁজে বের করতে পরীক্ষা-নিরীক্ষার একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। অর্থোপেডিক ডাক্তার আপনার শিশুর সর্বিক স্বাস্থ্য নিয়ে বেশ কিছু প্রশ্ন করতে পারেন, সেগুলোর সঠিক উত্তর দিতে হবে। চিকিৎসক আপনার শিশুর পিঠ পরীক্ষা করে দেখবেন। তাঁকে সব ধরনের সহযোগিতা করতে হবে।

ল্যাবরেটরি পরীক্ষা

  • ইনফেকশন রয়েছে কি না, তা দেখার জন্য রক্তের পরীক্ষা (সিবিসি), ইএসআরসি-রিঅ্যাকটিভ প্রোটিন (সিআরপি)।
  • অনেক সমস্যায় রিউমাটয়েড স্কিন পরীক্ষা করার প্রয়োজন হয়।

রেডিওলজি পরীক্ষা

  • প্লেইন এক্স-রে মেরুদণ্ডের হাড় সরে গেছে কি না, হাড় ভেঙেছে কি না, ক্ষয় হয়েছে কি না ইত্যাদি দেখার জন্য এবং মেরুদণ্ডের সার্বিক আকৃতি বোঝার জন্য পিঠের এক্স-রে করতে হবে।
  • এমআরআই স্ক্যান-ডিসাইটিস, ডিস্কের ক্ষয়, ডিস্কের প্রোলাপস ও স্পাইনাল কর্ডে কোনো সমস্যা রয়েছে কি না তা দেখার জন্য এমআরআই পরীক্ষা করতে হবে।

চিকিৎসা

  • ব্যথা অনেক সময় বিশ্রাম নিলে চলে যায়। যদি ব্যথা না যায়, তাহলে ব্যথানাশক ওষুধ প্যারাসিটামল বা আইব্রুফেন দেওয়া যেতে পারে। কখনো কখনো ফিজিক্যাল থেরাপির প্রয়োজন হয়।
  • ক্ষেত্রবিশেষে অপারেশনের প্রয়োজন হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...